আবু হুরায়রা রাঃ এর ১০০ ঘটনার ৫ নং ঘটনা

রাসূল সা: এর মু’জিযার মাধ্যমে ক্ষুধা নিবারণ

কখনাে কখনাে ক্ষুধার কারণে আবু হুরায়রা রা. কোমর সােজা করতে পারতেন না। এমন অবস্থায় পেটে পাথর বেঁধে নিতেন। তিনি নিজেই বলেন, “একদিন আমি চরম ক্ষুধার্ত অবস্থায় সাধারণ সড়কের পাশে পড়ে রয়েছিলাম। আবু বকর রা, আমার পাশ দিয়ে যাচ্ছিলেন। আমি তাঁকে কোরআন মাজীদের একটি আয়াত সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলাম। আমার উদ্দেশ্য ছিল, তিনি আমাকে সাথে যেতে বলবেন এবং কিছু খেতে দিবেন। কিন্তু তিনি চলেই গেলেন। আমাকে সঙ্গে নিলেন না। এরপর একই সড়ক দিয়ে ওমর রা.-এর চলে গেলেন। আমাকে সঙ্গে নিলেন না। এরই ধারাবাহিকতায় রাসূলে আক্রাম সা.-এর পদচারনাও এ সড়ক দিয়ে ঘটলাে। যখন প্রিয়নবী সা. আমার প্রতি স্নেহের দৃষ্টিতে তাকালেন, ঠিকই তিনি আমার প্রচন্ড ক্ষুধার ব্যাপারটি অনুভব করলেন। আর কোমল কষ্টে ইরশাদ করলেন,
.
“এটা কি আবু হুরায়রা?” এরপর আবু হুরায়রা রা. রাসূলে আক্রাম সা.- এর সাথে তার দরবারে পৌঁছে গেলেন। প্রিয়নবী সা, ঘরে গিয়ে একটি দুধের পাত্র পেলেন। ঘরে অবস্থানকারীর নিকট জিজ্ঞেস করলেন, “এই
দুধ কোথা হতে এলাে?” উত্তর এলাে- “অমুক ব্যক্তি আপনার জন্য দুধ পাঠিয়েছেন।” রাসূলে আকরাম সা. আবু হুরায়রা রা. কে বললেন, “হে আবু হুরায়রা! আসহাবে সুফফার কাছে যাও এবং সবাইকে এখানে
আসতে বলাে।
.
আহলে সুফফা ইসলামেরই মেহমান ছিলেন। না তাদের কোনাে বাড়ী ছিল, না ছিল কোনাে ধন-সম্পদ। যখন প্রিয়নবী সা.-এর কাছে কোনাে উপহার আসতাে, তখন সেগুলাে নিজে ব্যবহার করতেন এবং তাতে আহলে সুফফাদেরও শরিক রাখতেন।
আবু হুরায়রা রা. বলেন, নবী সা. যখন আসহাবে সুফফার সাথীদের ডেকে আনতে বললেন, ব্যক্তিগতভাবে তা আমার নিকট একটু খটকার জন্ম দিল। মনে মনে ভাবছিলাম- এই দুধটুকু আমি একা পান করবাে
আর এতে আমার কিছু শক্তি সঞ্চয় হবে। আশ্চর্য! এই সামান্য পরিমাণ
দুধ সমস্ত আহলে সুফফাবাসীর কী করে হবে…? এতদ্সত্ত্বেও রাসূলে
আকদাস সা.-এর নির্দেশ পালন করা জরুরী। নির্দেম মতাে আমি আহলে
সুফফার সকল সাথীদেরকে প্রিয়নবী সা.-এর পয়গাম পৌঁছালাম। তারা
সকলে রাসূলুল্লাহ সা.-এর দরবারে উপস্থিত হলেন। একে একে যখন সুফফার সকল সাথী পৌঁছলাে প্রিয়নবী সা. তখন বললেন, “হে আবু হুরায়রা! এই পাত্রটি উঠাও। আর প্রত্যেককে দুধ পান করাও।” নির্দেশ মােতাবেক আবু হুরায়রা রা. প্রত্যেককে বারবার দুধ পান করালেন। সকলেই খুব তৃপ্তি সহকারে দুধ পান করলেন। অবশিষ্ট দুধ তিনি রাসূলুল্লাহ সা.-এর খেদমতে পেশ করলেন। রাসূলুল্লাহ সা. মুচকি হেসে মাথা মােবারক ওপরে উঠিয়ে আমাকে বললেন, “এখন তুমি আর আমি অবশিষ্ট রইলাম।” আবু হুরায়রা রা. আরয করলেন, “জ্বী হাঁ, ইয়া রাসূলাল্লাহ্।” রাসূলুল্লাহ সা. আবু হুরায়রা রা.-কে বললেন, এখন তুমি পান করাে। আবু হুরায়রা রা. দুধ পান করলেন। রাসূলুল্লাহ
সা. বললেন, “পান করাে।” নির্দেশ পেয়ে তিনি আবারও পান করলেন।
রাসূলুল্লাহ সা. বললেন, “আরাে পান করাে।” আবু হুরায়রা রা. পান
করেই যাচ্ছেন।
.
এক পর্যায়ে তিনি আরয করলেন, ইয়া রাসূলাল্লাহ সা. কসম ঐ মহান স্বত্ত্বার, যিনি আপনাকে ধ্রুব সত্যের সাথে পাঠিয়েছেন, আমার পক্ষে আর দুধ পান করা সম্ভব নয়। রাসূলুল্লাহ সা. অবশিষ্ট দুধটুকু হাতে নিয়ে পান
করলেন।
(সহীহ বুখারী, হাদীস নং- ৪৯৫৬। মুসনাদে আহমাদ, হাদীস নং- ১০২৬৩।
তিরমিযী, হাদীস নং- ২৪০১)

Leave a Reply

Your email address will not be published.