সোনামণিদের সুস্থ্য রাখার উপায়সমূহ

(১) ইসলাম ও বিজ্ঞানসম্মত উপায়ে নিয়মিত পুষ্টিকর ও সুষম খাদ্য গ্রহণ করা (২) সর্বদা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার নীতি অবলম্বন করা (৩) প্রয়োজনমত পড়াশোনা, ঘুম, ও বিশ্রাম নেওয়া (৪) সময়মত খেলা-ধুলা ও পর্যাপ্ত ব্যায়াম করা (৫) শরীর ও মন ভাল এবং সুস্থ থাকার জন্য মহান আল্লাহ্ র  নিকট দোয়া করা।
সুধী পাঠক! ইসলাম সার্বজনীন একটি পরিপূর্ণ জীবন বিধান।  ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ, অর্থনীতি, রাজনীতিসহ ইহলৌকিক ও পারলৌকিক যাবতীয় কল্যাণের বিধি-বিধান ইসলাম পরিপূর্ণভাবে মওজুদ রয়েছে।
চিকিৎসা শাস্ত্রেও রয়েছে ইসলামের সুস্পষ্ট দিক-নির্দেশনা। এজন্য পবিত্র কুরআনে অসংখ্য আয়াতে মহান আল্লাহ চিকিৎসা দ্বার উন্মোচন করেছেন। বিশ্বনবী মুহাম্মাদ (ছাঃ)-এর মুখ নিঃসৃত বাণী হতেও আমরা রোগমুক্তির
অনেক পদ্ধতি পায়। এজন্য মুহাদ্দিছগণ হাদীছ সংকলনের ক্ষেত্রে বিভিন্ন হাদীছ গ্রন্থে ‘কিতাবুত্ব ত্বিব্ব অর্থাৎ চিকিৎসা নামে অধ্যায় বিন্যাস করেছেন। অন্যদিকে মুসলিম জাতি একদিকে যেমন জ্যোতির্বিজ্ঞান,
ভূগোলবিদ্যা, রসায়ন শাস্ত্রে রয়েছে অসমান্য অবদান। অনুরূপ চিকিৎসা শাস্ত্রেও রয়েছে যুগান্তকারী পদক্ষেপ। নিম্নে ধারাবাহিকভাবে ইসলামে স্বাস্থ্য সুরক্ষা কেমন হতে পারে তার নাতিদীর্ঘ আলোচনা করা হবে। এক্ষেত্রে
বিশেষ করে আমাদের সোনামণিরা বেশী অসুস্থ হয় বলে বইটির নাম আমরা ‘কুরআন-সুন্নাহ ও বিজ্ঞানের আলোকে সোনামণিদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা  নামে প্রকাশ করলাম

Leave a Reply

Your email address will not be published.